তারিখ : ২৫ আগস্ট ২০১৯, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গফরগাঁওয়ে এসিড নিক্ষেপর ঘটনায় গ্রেফতার -১

গফরগাঁওয়ে মাদ্রাসা ছাত্রী মিনহা উপর এসিড নিক্ষেপর ঘটনায় গ্রেফতার -১;পরিবারের অভিযোগ প্রকৃতদের বাঁচাতে পুলিশের ভিন্ন কৌশল
[ভালুকা ডট কম : ৩১ জুলাই]
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া মাদ্রাসার ছাত্রী মিনহা রাফিদার(১৮)মুখে এসিড নিক্ষেপর ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে সন্দেহ জনকভাবে গফরগাঁওয়ের আনসারনগর গ্রাম থেকে আল কাওসার নামে যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।গ্রেফতারকৃত আল কাওসার এসিড দগ্ধ মিনহার চাচাতো ভাই।তার বাবার নাম আব্দুল খালেক খাঁন।

পাগলা থানার ওসি শাহীনুজ্জামান জানান,আল কাওসারকে বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহ আমলী আদালতে প্রেরণ করে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।এদিকে এসিডে দগ্ধ মিনহার বাবা ও মামলার বাদী সালাউদ্দিন খাঁনের অভিযোগ পুলিশ প্রকৃত অপরাধীদের বাঁচাতে উল্টো আমাদের পরিবারের লোকজনকে নান ভাবে হয়রানি করছে।আমার ভাতিজা আল কাওসার ভাল ছেলে।পুলিশ সন্দেহ জনক তাকে গ্রেফতার করেছে।প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতে পুলিশ মামলাকে ভিন্ন দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

মিনহা’র বড় ভাই হাসিব খাঁন জানান,সন্ত্রাসীরা মাদ্রাসার অন্য কোন ছাত্রীকে ঐদিন এসিড নিক্ষেপ করতে এসে ছিল।তাদের ভুল টার্গেটের শিকার হয়েছে আমার ছোট বোন মিনহা।পুলিশ প্রকৃত অপরাধীদের খোঁজে বের করে আনের আওতায় আনুক এটা আমারা চাই।আল কাওসারের বাবা আব্দুল খালেক জানান,আমার ছেলে একজন প্যাথলেজি টেকনেশিয়ান।ঘটনার দিন সকালে আল কাওসার গফরগাঁও পৌরশহরের ডায়াবেটিক হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন।

উপজেলার পাঁচবাগ ইউনিয়নের আনসার নগর গ্রামের সালাউদ্দিন খাঁনের মেয়ে মিনহা রাফিদা।স্থানীয় পাঁচবাগ ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ফাজিল ১ম বর্ষের ছাত্রী সে।গত২৭জুলাই প্রতিদিনের মতো মাদ্রাসা থেকে পায়ে হেঁটে বাড়ি যাচ্ছিল।সকাল ১১টার দিকে গফরগাঁও-হোসেনপুর সড়কের তারাটিয়া গ্রামের বাঘের বাড়ির কাছে আসা মাত্র দুই জন অজ্ঞাতনামা মোটরসাইকেল আরোহী মিনহা রাফিদার পথ রোধ করে।এক পর্যায়ে মোটরসাইকেলে পেছনে বসা এক যুবক কিছু বুঝে উঠার আগেই  মিনহা রাফিদার মুখ মন্ডলে এসিড নিক্ষেপ করে দ্রুত বেগে পালিয়ে যায়।এসময় সে চিৎকার করেতে করতে সড়কের পাশে ছফির উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে প্রথমে হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।পরে অবস্থার অবনতি হলে রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই