তারিখ : ১১ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুন ২০২০, সোমবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
৫ জন ২২৯ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৮২ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুরে ২২কার্ডধারীর ১৭মাসের চাল আত্মসাত

গৌরীপুরে ২২কার্ডধারীর ১৭মাসের চাল আত্মসাত,ঈদের আগে দু’মাসের চাল পায়নি ৩২৮জন
[ভালুকা ডট কম : ০৭ জুন]
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নে ২২কার্ডধারী ১৭মাসের ১৫হাজার ৪৪০ কেজি চাল আত্মসাত, দু’মাসের ৩২৮জন ঈদের আগে চাল পায়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থরা জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট বুধবার (৩ মে) এ অভিযোগ করেন। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিডি) কর্মসূচীর অধিনে প্রত্যেক মহিলাকে ৩০ কেজি করে প্রতিমাসে চাল বরাদ্ধ দেন।

জানা গেছে, জনপ্রতিনিধিদের দেয়া তালিকা যাচাই-বাছাই করেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর। এ বিভাগের কর্মকর্তার উদাসীনতায় এ কর্মসূচীতে দুর্নীতি, অনিয়ম ও দীর্ঘদিন যাবত সুবিধাভোগী চাল বঞ্চিত হওয়ার ঘটনা ঘটছে। প্রকৃত সুবিধাভোগীদের স্থলে প্রতি কার্ডে ৩ থেকে ৫হাজার টাকায় কার্ড বিক্রি ও কার্ডধারীদের মাসের পর মাস চাল না দিয়ে লুটপাটের মহোৎসব চলছে।

বৃহস্পতিবার অভিযোগের সূত্র ধরে তদন্তে জানা গেছে, বোকাইনগর ইউনিয়নের মিরিকপুর গ্রামের মোঃ মিলন মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ রেনু আক্তার। তালিকায় ১৮৮নং ক্রমিকে তার নাম রয়েছে। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের হিসাব অনুযায়ী এ কার্ডধারীকে দেয়া হয়েছে ১৭মাসে ৫১০ কেজি চাল। রেনু আক্তার বিস্মৃত, তার নাম আছে তিনি জানেন না। তার স্বামী মিলন মিয়া বলেন, গত মাসেও চেয়ারম্যানকে ভোটার আই.ডি’র ফটোকপি দিয়ে আসছেন। ভিজিডি’র নতুন তালিকায় নাম দেয়ার জন্য। একই গ্রামের ১৮৮নং কার্ডধারী মোছাঃ সায়মা আক্তার লিপি, ১৭৪নং শেফালী আক্তার ও ১৮০নং মোসাঃ মুর্শিদা আক্তারও তালিকায় নাম থাকলেও চাল পায়নি। মুর্শিদা আক্তার জানান, গত ২০১৭-১৮ভিজিডি চক্রের তার নাম ছিলো। ওই ২৪মাসের ৭২০ কেজি চাল কে উত্তোলন করলো জানা নেই; এবার দু’মাসে ৬০ কেজি চাল পাওয়ার পর গতবার নাম থাকায় কার্ড নিয়ে গেছে। তিনিও এ ঘটনার বিচার দাবী করেন।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, বোকাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ হাবিব উল্লাহ এর অনুকূলে ৩২৮জনের ৯.৮৪ টন বরাদ্দকৃত। চালের বরাদ্দ মার্চের টা ২৪মার্চ, এপ্রিল মাসের বরাদ্দ ৬এপ্রিল, মে মাসের বরাদ্দ ৪ মে এবং জুনের বরাদ্দ ৩জুন দেয়া হয়েছে। খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্ধার্থ শংকর তালুকাদার জানান, মার্চের চাল ৩১মার্চ, এপ্রিলের চাল ৩০ এপ্রিল ও মে মাসের চাল ১৩ মে বিতরণ করা হয়েছে। কার্ডধারীদের বিতরণ বিবরণীতে দেখা যায়, জানুয়ারি মাসের চাল বিতরণ করা হয়েছে ৮ এপ্রিল, ফেব্রুয়ারি আর মার্চ মাসের চাল বিতরণ করা হয়েছে ৭ মে।

১৭মাসের চাল বঞ্চিত হওয়ার ঘটনায় তালিকাভুক্ত ১৮৮নং কার্ডধারী মিরিকপুরের মিলন মিয়ার স্ত্রী রেনু আক্তার, ১৭৬নং কার্ডধারী রতন খান পাঠানের স্ত্রী মাকসুদা, হযরত আলীর স্ত্রী মুর্শিদা (১৮০), সেকুল মিযঅর স্ত্রী রেজিয়া খাতুন (১৮৫),  মামুদনগরের দুলাল মিয়ার স্ত্রী দোলেনা (১৯৬), দিউপাড়ার আব্দুল জলিলের স্ত্রী রুমা আক্তার (২৫৬), নাহড়ার মোঃ জাহাঙ্গীরের স্ত্রী মিনা আক্তার (১১০), আব্দুল গনির স্ত্রী রেখা আক্তার (১১২), রতন মিয়ার স্ত্রী আছিয়া (১১১), দরুন কৃষ্ণপুর গ্রামের লিটনের স্ত্রী হাসি (২৮৫), রুনা আক্তার (১১৭), মিনা বেগম (১২১), রওশন আরা (১৯৪), আনোয়ারা বেগম (২৯৩), রুমা আক্তার (২৮৮), সবিতা রানী দেবনাথ (২৮৪), মনোয়ারা বেগম (২৯৭), বিলকিস বেগম (৩০৩), আঙ্গুরা বেগম (৩২৮), রেহানা (১৬) জানান, তাদের ১৫হাজার ৮৪০ কেজি চাল বঞ্চিত হন বলে অভিযোগ করেন।

অপরদিকে খাদ্যগুদাম থেকে ঈদের আগে চাল উত্তোলন হলেও ৩২৮জন কার্ডধারীরে দু’মাসের ১৯হাজার ৬৮০ কেজি চাল বিতরণ হয়নি। পবিত্র ঈদুল ফিতরের পূর্বে বরাদ্দ ও উত্তোলনকৃত চাল না পাওয়ায় ক্ষোভ ফুসছে ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিডি) কর্মসূচীর সুবিধাভোগীরা।

এ প্রসঙ্গে বোকাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ হাবিব উল্লাহ জানান, কেউ চাল পায়নি এ অভিযোগ আমাকে জানায়নি। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে ১৭মাসের চাল এক সঙ্গে দিয়ে দিবো। দু’মাসের চাল উত্তোলন হয়ে থাকলে ইউনিয়ন পরিষদের গুদামে আছে, দিয়ে দিবো। ইউপি মেম্বার আজিজুল হক বলেন, অভিযোগকারীদের অনেকেই চাল পাচ্ছে। আমার দেয়া তালিকায় কেউ বঞ্চিত হয়নি। দুই মাসের চাল বিতরণ হয়নি সত্যতা নিশ্চিত করেন তদারকি কর্মকর্তা উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আবু রায়হান।

মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা বেগম আকন্দ জানান, চেয়ারম্যানকে বারবার তাগিদ দেয়ার পরেও চাল দিচ্ছেন না তিনি।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেঁজুতি ধর জানান, বরাদ্ধ বঞ্চিত নারীদের একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তের জন্য মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই