তারিখ : ১৪ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুন ২০২০, সোমবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
৫ জন ২২৯ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৮২ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে ভুয়া সাংবাদিকসহ তার চার সহযোগী আটক

শ্রীপুরে খাবার হোটেলে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে ভুয়া সাংবাদিকসহ তার চার সহযোগী আটক
[ভালুকা ডট কম : ৩০ জুন]
গাজীপুরের শ্রীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে খাবার হোটেলে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে ভুয়া সাংবাদিকসহ তার চার সহযোগী আটক করেছে স্থানীয় জনতা। তবে তাদের আরেক সহযোগী আরিফ হোসেন পালিয়ে যায়। পুলিশ তাদের কাছ থেকে একটি নোয়া গাড়ী জব্দ করেছে।

সোমবার রাত ৮টায় শ্রীপুর পৌরসভার মাওনা চৌরাস্তা বিসমিল্লাহ বিরানি হাউজ থেকে তাদের আটক করে শ্রীপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মনিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গ্রফতারকৃতরা হলো কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার চরআলগী (বৈরাগীরচর) গ্রামের হযরত আলীর ছেলে মোস্তফা কামাল (৪০), তার সহযোগী গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার আজুগীরচালা গ্রামের বুলবুল হোসেনের ছেলে জাহিদ হাসান (১৯), বহেরারচালা গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে সাবিব্বর হোসেন (২০), বেলতলী গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া (২০) এবং নোয়া গাড়ীর চালক পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার মাদারসী বাজার এলাকার শাহাজাহন হাওলাদারের ছেলে মানিক হাওলাদার (৪৫)।

বিসমিল্লাহ বিরানি হাউজের কর্মচারী সাগর খান জানান, সোমবার রাত ৮টায় একজন খাবার হোটেলে প্রবেশ করে তাদের খাবারে ব্যাঙ পাওয়ার অভিযোগ তুলেন। তার কিছুক্ষন পর সাংবাদিক পরিচয়ে কয়েকজন হোটেলে প্রবেশ করেন এবং দোকানের ভিডিও ধারণ করা শুরু করেন। এসময় তাদের মূল হোতা মোস্তফা কামাল ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার ভয় দেখিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। হোটেল মালিক ভয়ে ১০ হাজার টাকা তাদের হাতে তুলে দেয়। পরে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে তারা তাদের আটক করে। এসময় ঘটনার মুল হোতা মোস্তফা কামালসহ অন্যরা পালিয়ে গেলেও স্থানীয়রা জাহিদ এবং সাব্বিরকে আটক করে শ্রীপুর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। আটকৃত দুজনকে থানা থেকে ছাড়িয়ে আনতে গেলে ঘটনার মূলহোতা মোস্তফা কামালসহ তার আরো দুই সহযোগীকে হোটেল কর্মচারীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ আটক করে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সাম্প্রতিক সময়ে শ্রীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে সংঘবদ্ধ কয়েকটি চক্র সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের হয়রানি করে আসছে। বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে তারা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাড়ি, কারখানা থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করে আসছে। তবে হয়রানির ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মনিরুজ্জামান জানান, মোস্তফা কামাল নিজেকে সিএনএন বাংলা টিভির ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি, টাটা টিভির বিশেষ প্রতিনিধি, সিবি টিভির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং ক্রাইম বাংলা টিভির চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন গনমাধ্যমের পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে থাকে। তার কাছ থেকে সিএন এন বাংলা টিভি, ৭১ বাংলা টিভি, তারা টিভির পরিচয়পত্র উদ্ধার এবং একটি নোয়া গাড়ি (ঢাকা মেট্রো-চ ৫১-৩৮৪৭), একটি ক্যামেরা, একাধিক মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। বিসমিল্লাহ বিরানি হাউজের কর্মচারী সাগর খানের অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

মিডিয়া বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই